Breaking News

চাকরির পরীক্ষায় ভালো করার জন্য

চাকরির_পরীক্ষায় ভালো করার জন্য যে ভাবে শুরু করা যেতে পারে।

 সবার আগে অন্যের কথায় হতাশ হওয়া,অন্যের কথায় ভেঙ্গে পড়া এবং অন্যের কথায় প্রভাবিত হওয়া বাদ দিয়ে আত্মবিশ্বাস নিয়ে,নিজের উপর আস্থা রেখে শুরু করতে হবে।

পরীক্ষার আগে আগে যাহাতে পরীক্ষা সংক্রান্ত সকল বিষয় আয়ত্ত্ব করতে পারেন এ জন্য একটা অধ্যয়ন পরিকল্পনা প্রয়োজন। পরিকল্পনাবিহীন লেখাপড়া সফলতা অর্জন করতে পারে না।

 পরিকল্পনা ছাড়া এই পৃথিবীতে এখন পর্যন্ত যত কাজ হয়েছে তার শতকরা ৯৮% কাজ সঠিক ভাবে সফলতা অর্জন করতে পারেনি। তাই আজ থেকে পরিকল্পনা গ্রহণ করুন। যে কাজটি করতেই হবে সে কাজটি এখন থেকে সম্পূর্ণ করার চেষ্টা করুন।

আপনার মনকে বুঝাতে হবে যে আপনার সামনে একটা লক্ষ্য আছে। আপনার একটা স্বপ্ন আছে। আর সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়নের জন্য প্রথমে আপনার মনকে প্রস্তুত করতে হবে। নেতিবাচক চিন্তা মন থেকে ঝেড়ে ফেলুন। সন্দেবাতিক মন মস্তিষ্কের ক্ষতি করে। মনের সঙ্গে মস্তিষ্কের যোগাযোগটা গভীর। তাই মনের পরিচর্চা করুন। সব সময় ইতিবাচক চিন্তা করুন। এতে মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বাড়বে।

BCS POWER PLAN FOR PRELIMINARY

 নিজের উপর আত্মবিশ্বাস রাখুন। আত্মবিশ্বাস যে কোন কাজে সফল হওয়ার প্রথম শর্ত। মনকে বুঝাতে হবে আমি পারবো,আমাকে পারতেই হবে। আত্মবিশ্বাসী মন নিয়ে পরিশ্রম করুন। পরিশ্রমই হলো সফল হওয়ার আসল রহস্য।

 আপনাকে পরীক্ষার আগেই প্রশ্নের ধরণ,প্রশ্ন কাঠামো ও নম্বর বন্টন ইত্যাদি সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা রাখতে হবে। তখন আপনার প্রস্তুতি কতটুকু যথার্থ হয়েছে তা নিজে নিজে উপলদ্ধি করতে পারবেন।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কবিতা, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর নোবেল পুরস্কার, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের উপন্যাস সমগ্র, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছদ্মনাম, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জীবনী, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নাটক, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রথম কবিতা, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রবন্ধ, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ভাই বোন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সংক্ষিপ্ত জীবনী
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

গতানুগতিক ধারার বাহিরে ব্যতিক্রম পড়াশুনা করতে হবে যাতে স্বল্প সময় ভালো কিছু করা সম্ভব হয়। টপিকস অনুসারে প্রত্যেকটি বিষয় পুরোপুরি বুঝার চেষ্টা করতে হবে যাতে প্রশ্ন ঘুরে আসলে পারা যায়। পড়ার পর লেখার অভ্যাস করুন। শেখার পর খাতায় লিখলে মনে থাকবে ও চোখের সাহায্যে অন্তরে গেঁথে যাবে। একবার পড়ে কয়েকবার লিখলে তাড়াতাড়ি মুখস্থ হবে। পরবর্তীতে প্রশ্নটি পরীক্ষায় আসলে অনায়াসে মনে রাখতে পারবেন। আর পড়ার পর লেখার অভ্যাস করলে হাতের লেখা ও সুন্দর হবে।

কতটকু পড়েছি,কতটুকু ভুলে গেছি সে চিন্তা না করে বেশি বেশি পড়তে হবে। নিজে নিজে সময় ধরে বেশি বেশি পরীক্ষা দিতে হবে। মনে রাখবেন আপনার পড়াশোনার পরিমাণের উপর নির্ভর করবে আপনার পরবর্তী সফলতা। সর্বোপরি আপনি সফল হউন এই প্রত্যাশায়-

About মোঃ জয়নাল আবদীন

আপনি আমাদের সাইটে পাবেন বিসিএস পরীক্ষার জন্য অনলাইন ভিক্তিক পরীক্ষা ও রেজাল্ট । Next Bcs

Leave a Reply