Breaking News

মূল্যবোধ Bcs

মূল্যবোধ গড়ে ওঠার পেছনে যেসব সহায়ক কাজ করে তা হল : পরিবার, ধর্ম সামাজিক রীতিনীতি, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, আইন-কানুন, সংবিধান, সংস্কৃতি, নীতিবোধের চর্চা, সংগঠন ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান, সভা-সমিতি, সামাজিক ন্যায়বিচার, আইনের শাসন, সামাজিক অনুষ্ঠান, নাগরিক চেতনা এবং সামাজিক শিক্ষা।
 মূল্যবোধের উপাদান: মূল্যবোধ উপাদানগুলো হলো নীতি ও ঔচিত্যবোধ, সামাজিক ন্যায়বিচার, সহনশীলতা, পারস্পারিক শ্রদ্ধাবোধ, পরমতসহিষ্ণুতা, শ্রমের মর্যাদা, দায়িত্ব ও কর্তব্যবোধ, রাষ্ট্রীয় আনুগত্য ও আইনের শাসন। মূল্যবোধ শিক্ষার উপাদান গুলি সমাজে প্রতিষ্ঠা উপায়: মূল্যবোধের শিক্ষা মানুষ প্রতিনিয়ত ও প্রতিমুহূর্তে গ্রহণ করে থাকে। তারপরেও যেসব উপায় মূল্যবোধ শিক্ষার উপাদান গুলো সমাজে প্রতিষ্ঠা করা হয় তা নিম্নরূপ: জীবনের সকল ক্ষেত্রে মূল্যবোধের চর্চা করা। মূল্যবোধ প্রতিষ্ঠার জন্য সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলা। বুদ্ধিবৃত্তিক চিন্তার উন্নতি করা। সম্প্রদায়ের শান্তি প্রতিষ্ঠায় রক্ষা করা। পারস্পারিক সম্পর্ক রক্ষা করা। ঘোষণা নিয়ম ও সতর্কতার জারির মাধ্যমে। সমস্যা সমাধানের মাধ্যমে মূল্যবোধের শিক্ষা দেওয়া। ইতিবাচক চিন্তা করা। মারুফ পড়ছে তাকে সম্মান করা। সত্যবাদিতা শিক্ষা প্রদান করা। সমাজে বৃহৎ ক্ষেত্রে যোগাযোগ করা। পরিবার বন্ধুবান্ধব বিদ্যালয়ের শিক্ষক সময় স্থানীয় ব্যক্তি এবং প্রতিবেশীদের সাথে সামাজিকীকরণ এর মাধ্যমে।

মূল্যবোধের শিক্ষা ও সুশাসন প্রশ্ন
মূল্যবোধ Bcs

 মূল্যবোধের সংজ্ঞা:ডেভিড পোপেনো এর মত হচ্ছে: ভালো-মন্দ, ঠিক বেঠিক, কাঙ্খিত অনাকাঙ্ক্ষিত বিষয় সম্পর্কে সমাজের সদস্যদের কে যে ধারণা তার নাম মূল্যবোধ।
 আরএম উইলিয়ামস এর মত: মূল্যবোধ মানুষের ইচ্ছার একটি প্রধান মানদণ্ড।
 স্টুয়ার্ট সি ডট এর মত: সামাজিক মূল্যবোধ হলো সেই সম্প্রীতির রীতি নীতি সমষ্টির যা ব্যক্তি সমাজের নিকট হতে আশা করে এবং যা সমাজ ব্যক্তির নিকট হতে লাভ করে।
 এম ডাব্লিউ প্রামফ্রের মতে: মূল্যবোধ হলো ব্যক্তি বা সামাজিক দলের অভিপ্রেত ব্যবহারের সুবিধা প্রকাশ।
 মেঘ করনি এর মতে সুশাসন বলতে : রাষ্ট্রের সাথে সুশীল সমাজের, সরকারের সাথে শোষিত জনগণ, শাসকের সাথে শাসিতের সম্পর্ককে বোঝায়।
 মূল্যবোধের বিভিন্ন প্রকারভেদ রয়েছে: ব্যক্তিগত মূল্যবোধ, সামাজিক মূল্যবোধ, প্রাতিষ্ঠানিক মূল্যবোধ, পেশাগত মূল্যবোধ, অর্থনৈতিক মূল্যবোধ, আধুনিক মূল্যবোধ, আইনগত মূল্যবোধ ইত্যাদি।
 ভালো-মন্দ ঠিক বেঠিক কাঙ্খিত অনাকাঙ্ক্ষিত বেশি সম্পর্কে সমাজের সদস্যদের কে যে ধারণা তার নাম সাধারণত মূল্যবোধ। মূল্যবোধ হলো সেসব পৃথিবীতে সমস্ত ব্যক্তির নিকট হতে পেতে চায় এবং সমাজ ব্যক্তির নিকট হতে লাভ করে। মূল্যবোধ ক্রমশ পরিবর্তনশীল। স্থান-কাল পরিবর্তন ভেদে এটি পরিবর্তন হয়ে থাকে। নাগরিকের জীবন রক্ষার জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হলো গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ। গণতন্ত্র হলো জনগণের শাসক। গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের দৃষ্টিতে রাষ্ট্র হলো জনগণ। মূল্যবোধ হলো সমাজ ও রাষ্ট্রের ভিত্তি। সুশাসন হলো জনগণের অংশগ্রহণ, আইনের শাসন, স্বচ্ছতা, সততা, দায়িত্বশীলতা, স্বচ্ছ ও অবাধ তথ্যপ্রবাহ।

মূল্যবোধ Bcs


 আইনের শাসন হচ্ছে সুশাসন ও মূল্যবোধের অন্যতম উপাদান। দায়িত্বশীলতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত হলে সুশাসন প্রতিষ্ঠা হবে। শাব্দিক অর্থ ও নৈতিকতা মানুষের রীতিনীতি বা আচার-ব্যবহার কে বুঝায়।  আইন ও নৈতিকতার অবক্ষয় মানুষ ও সমাজ। আইনের সাফল্য নির্ভর করে মূলত নীতিবোধের উপর। সংখ্যালঘুর অধিকার প্রতিষ্ঠা করা শিক্ষা মূল্যবোধ শিক্ষা। কারাগারে যে ধরনের শিক্ষা প্রদান করা হয় তা মূল্যবোধ শিক্ষা। মূল্যবোধ হচ্ছে সামাজিক আচার আচরণের সমষ্টি। মূল্যবোধ মানসিক বিষয়। মূল্যবোধকে বিশ্লেষণ করলে পাওয়া যাবে মানসিক প্রক্রিয়া। বয়সের সাথে সাথে পরিবর্তন ঘটে মূল্যবোধের। মূল্যবোধে আরেক নাম নৈতিকতা। নীতিশাস্ত্র আলোচ্য বিষয় হচ্ছে নৈতিকতা। শাসক ও শাসিতের মধ্যে সুসম্পর্ক স্থাপন করে সুশাসন।

About Admin

আপনি এই ওয়েব সাইটের মাধ্যমে বিসিএস সকল টপিক অনুযায়ী পোষ্ট পাবেন । যা আপনার চাকুরি পরীক্ষায় অনেক টা কাজে আসবে। বিসিএস ক্যাডার রিভিউ ও তাদের মতামত পেতে আমাদের ওয়েব সাইটেই ভিজিট করতে পারেন। আপনি বিসিএস এর সকল বই পাবেন।

Leave a Reply