Breaking News

সাহিত্য সম্রাট বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

বাংলা সাহিত্যের প্রথম সার্থক ঔপন্যাসিক ও বাংলা উপন্যাসের জনক বঙ্কিমচন্দ্র চট্রোপাধ্যায় ২৬ জুন ১৮৩৮ সালে পশ্চিবঙ্গের চব্বিশপরগনা জেলার কাঁঠালপাড়া গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন।চট্টোপাধ্যায়দের আদিনিবাস ছিল হুগলি জেলার দেশমুখো গ্রামে। বঙ্কিমচন্দ্রের প্রপিতামহ রামহরি চট্টোপাধ্যায় মাতামহের সম্পত্তি পেয়ে কাঁঠালপাড়ায় আসেন এবং সেখানেই বসবাস শুরু করেন। রামহরির পৌত্র যাদবচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের তৃতীয় পুত্র বঙ্কিমচন্দ্র,মাতা দুর্গাসুন্দরী দেবী,বঙ্কিমের পূর্বে তার আরও দুই পুত্রের জন্ম হয় – শ্যামাচরণ ও সঞ্জীবচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়। বঙ্কিমের জন্মকালে তিনি সদ্য অবিভক্ত মেদিনীপুর জেলার ডেপুটি কালেক্টর পদে উন্নীত হয়েছিলেন। তার রচিত রোমন্সধর্মী উপন্যাস কপালকুন্ডলা (১৮৬৬)। তিনি ৮ এপ্রিল ১৮৯৪ সালে কলকাতায় মৃত্যুবরণ করেন।

  • উপাধি— বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়
  • সাহিত্যসম্রাট
  • ঋষি
  • বাংলার স্কট
  • রায় বাহাদুর
  • সি.আই.ই
  • ছদ্মনাম—কমলাকান্ত,রামচন্দ্র।
  • সম্পাদিত পত্রিকা—বঙ্গদর্শন (১৮৭২)
  • রচিত কাব্য গ্রন্থ—“ললিতা তথা মানস” (১৮৫৬)

সাহিত্য সম্রাট

Bcs power plan
বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়
     রচিত প্রবন্ধঃ-

লোক রহস্য
কমলাকান্তের দপ্তর
কমলাকান্তের পত্র
কমলাকান্তের জবানবন্দী
সাম্য
বিজ্ঞান রহস্য
বিবিধ সমালোচনা
বিবিধ প্রবন্ধ
ধর্মতত্ত্ব অনুশীলন
শ্রীমদ্ভগবদগীতা
বঙ্গদেশের কৃষক

প্রবন্ধ মনে রাখুন—বঙ্কিম কমলাকান্তের দপ্তরে বসে বিবিধ প্রবন্ধ এর বিবিধ সমালোচনা করে ধর্মতত্ত্ব অনুশীলন করে বঙ্গদেশের কৃষকের জন্য লোক রহস্য ও বিজ্ঞান রহস্য দিয়ে সাম্য প্রতিষ্ঠা করলেন।

রচিত উপন্যাসঃ-

Rajmahan Wife

দুর্গেশনন্দিনী
বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় শ্রেষ্ঠ উপন্যাস কপালকুন্ডলা
মৃণালিনী
বিষবৃক্ষ
চন্দ্রশেখর
রজনী
কৃষ্ণকান্তের উইল
দেবী চৌধুরাণী
আনন্দমঠ
রাজসিংহ
রাজসিংহ
সীতারাম
ইন্দিরা
যুগলাঙ্গবীয়
রাধারাণী

বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় উপন্যাস মনে রাখার কৌশলঃ

বঙ্কিম রাজমোহনের স্ত্রী যুগল দেবী চৌধুরানী ও দুর্গেশনন্দিনী নিকট আনন্দের সাথে গান ধরলেন। কৃষ্ণ আইল রাধার কুঞ্জে, এ গান শুনে মৃণালিনী কপালকুন্ডলাকে নিয়ে রজনীতে আনন্দে ইন্দিরা রোডে সীতারাম হয়ে রাজসিংহ গেল। তা দেখে চন্দ্র শেখর বৃষবৃক্ষে মরল।

বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

বাংলা সাহিত্যের প্রথম সার্থক উপন্যাস—দুর্গেশনন্দিনী।
বাংলা ভাষার প্রথম সার্থক ঔপন্যাসিক– বঙ্কিমচন্দ্র চট্রোপাধ্যায়।
বঙ্কিমচন্দ্র চট্রোপাধ্যায় কোন পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন-বঙ্গদর্শন পত্রিকা।
ইন্দিরা গ্রন্থটি কার রচনা— বঙ্কিমচন্দ্র চট্রোপাধ্যায়।
সাহিত্য সম্রাট নামে খ্যাত কোন লেখক— বঙ্কিমচন্দ্র চট্রোপাধ্যায়।
পথিক তুমি পথ হারিয়েছো- বঙ্কিমের কোন উপন্যাসের উক্তি–কপালকুন্ডলা।
কৃষ্ণকান্তের উইল উপন্যাসের প্রধান চরিত্র–রোহিণী ও গোবিন্দ্রলাল।
বঙ্কিম কোন পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন বঙ্গদর্শন।
সাহিত্য সম্রাট নামে খ্যাত কোন লেখক– বঙ্কিমচন্দ্র চট্রোপাধ্যায়।
তুমি অদম তাই বলিয়া আমি উত্তম হইব না কেন কোন কবির রচনা– বঙ্কিমচন্দ্র চট্রোপাধ্যায়
কপালকুন্ডলা উপন্যাসের নায়ক কে-নবকুমার।
জেবুন্নেসা রাজসিংহ উপন্যাসের নায়িকা।
আনন্দমঠ বঙ্কিমের ঐতিহাসিক উপন্যাস।
কপালকুন্ডরা কোন প্রকৃতির রচনা রোমান্সমূলক।
কমলাকান্তের দপ্তর কার লেখা- বঙ্কিমচন্দ্র চট্রোপাধ্যায়।
যুগলাঙ্গবীয় গন্থের লেখক বঙ্কিমচন্দ্র চট্রোপাধ্যায়।

About Admin

আপনি এই ওয়েব সাইটের মাধ্যমে বিসিএস সকল টপিক অনুযায়ী পোষ্ট পাবেন । যা আপনার চাকুরি পরীক্ষায় অনেক টা কাজে আসবে। বিসিএস ক্যাডার রিভিউ ও তাদের মতামত পেতে আমাদের ওয়েব সাইটেই ভিজিট করতে পারেন। আপনি বিসিএস এর সকল বই পাবেন।

Leave a Reply